রাজনীতিবিদ​রা এবং আমাদের ঘৃনা !!! – Rahul Reza

আমি ফেসবুক এবং ব্লগ এ বাংলাদেশ এর শিক্ষিত ! সমাজের Activity গুলো কে নির্মল বিনোদন মনে করি । আমি মনে করি না, বাংলাদেশের জাতীয় জীবনে এর কোনো প্রভাব আছে বা থাকবে । আমি জানি , আমার এই প্রথম ২টি বাক্য পড়েই সবাই আমার উপর ঝাঁপিয়ে পড়বেন ।  ঝাঁপিয়ে পড়তে থাকুন – এর মাঝে আমি ২টা কথা বলে নিই । ফেসবুক এবং ব্লগে সবচেয়ে লিখিত উক্তি হলো-” শালা এই পলিটিশিয়ানদের জন্য দেশের এই অবস্হা অথবা কোথাও ভালো কিছু হয়েছে– কেউ বলছে দেখুন দেশ এগিয়ে যাচ্ছে- অন্য একজন সেই ফেসবুক এর ফিড এ গিয়ে লিখছেন — ব্লাডি পলিটিশিয়ান রাই দেশটা ১২ টা বাজাচ্ছে-নতুবা-দেশটা কোথা য় চলে যেত”- কারা লিখছে বা বলছে এই কথাগুলো –যারা বাংলাদেশের সব চেয়ে মেধাবী এবং শিক্ষিত ! সমাজ। মূল কথা হলো , আপনারা যত সংখ্যক লাইক পান না কেন অথবা যত বড় ব্লগার হোন না কেন , এই দেশ এর পরিবর্তনে আপনারা কোনো ভূমিকা রাখতে পারছেন না বা আপনাদের ভূমিকা শূন্য । জনাব ফেসবুকার , ব্লগার আপনার স্টাটাস ঢাকা থেকে এরিয়াল দূরত্ব ৪০ কিমি এর এক হাওর গ্রামের কৃষক  কে ভাব তাড়িত করে না । এই গ্রামে ঢাকা থেকে  যেতে ১২ ঘন্টা লাগে– মাত্র  !!! । 
 
আপনারা স্বপ্ন দেখতে থাকুন , আমার গ্রামের কৃষক , তার আই ফোন বা ল্যাপ টপে , ফেসবুকে আপনার স্টাটাস পড়ে সচেতন হবে আর জাগরিত হবে আর বাংলাদেশ  সহসাই  সোনার বাংলা হয়ে যাবে । দিন শেষে  আওয়ামী লীগ বা বিএনপি র নেতা / কর্মী দের দ্বারাই তারা পরিচালিত হন-খারাপ বা ভালো সেটা যেভাবেই হোক না কেন । হয়তো বা অবশ্যই এরা দূর্নীতিবাজ , সন্ত্রাসী বা খারাপ। কিন্ত এরা এই কৃষক আর আপমর সাধারন মানুষের সাথে থাকে । আপনি মনে করছেন -আপনার অনলাইন এক্টিভিটি দিয়ে তাদের প্রভাবিত করবেন- নো ওয়ে-আপনি বোকার স্বর্গে বাস করছেন । তারা আপনার চেয়ে হয়তো মেধাবী না হতে পারেন – কিন্তু আপনার চেয়ে এক কাঠি সরেস এবং সুচতুর । আপনাকে খুব বাহবা দিবে-আপনি মার্ক্স পড়ছেন, কোরান পড়ছেন, দেশের দূর্নীতি নিয়ে ভাবছেন –কিন্তু  এজেন্ডা বাস্তবায়ন করবেন তার নিজের মত করে । আপনি মনে করছেন-সৈয়দ আবুল হোসেন কে আপনি অনলাইনে ফাটিয়ে ফেলেছেন বা আমানুল্লাহ আমান কে ধরাশায়ী করে ফেলেছেন বা শহীদ উদ্দীন চৌধুরীকে সন্ত্রাসী বা রাজাকার বানিয়ে ফেলেছেন অথবা সুরন্জিত বাবু কে কালো বেড়াল বানিয়ে ফেলেছেন– কোনো লাভ নাই– মাদারীপুর এর লোক ঠিক আবুল হোসেন কে এমপি বানিয়ে আনবেন– কেরানি গন্জ এর মানুষ ঠিকই আমান কে ভোট দিবে — লক্ষীপুর এর মানুষ ঠিকই এ্যানি কে জয়যুক্ত করবে– সুনামগন্জ এর লোক ঠিকই আপনাদের চোখকে পাল্টি মেরে সুরন্জিত কে নির্বাচিত করে আনবে । আপনারা মনে করছেন অনেক বড় গন জাগরন করে ফেলেছেন -সেইটা আপনার ল্যাপটপে আর শাহবাগে । অবাক হয়েন না, যদি জামাত ৫ বা তারও অধিক সীট নিয়ে আসে ।মূল কথা হলো আপনারা হলেন আমাদের রাজনীতি বিদ দের কাছে দুধ-ভাত -কোনো বেইল নাই। পরিশেষে একটা কথা বলি– বাংলাদেশের     সকল রাজনীতিবিদ দের সালাম জানাই-তারা এক চিমটি  পরিমান হলেও আপনাদের চেয়ে দেশ প্রেমিক । কেন সেইটা -আর একদিন বিস্তারিত বলবো। 
বি: দ্র: এই লেখার ” আপনাদের” শ্রেনীতে আমিও অর্ন্তভুক্ত

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s