বাংলাদেশের মিডিয়া – এক্সিস অফ ইভিল

by  রোমেল আহমেদ:

কিংবদন্তি গীতিকার লতিফুল ইসলাম শিবলী একটা গল্প বললেন ,এক কুখ্যাত ডাকাত মৃত্যুর পূর্বে তার সন্তানদের ডেকে বলল- ‘বাবারা আমার মৃত্যুর পর তোমরা এমন কাজ কইরো যাতে লোকেরা আমাকে ভালো বলে’ , সেই ডাকাতের সন্তানেরা সেদিনের পর থেকে কোন বাড়িতে ডাকাতি শেষে ফেরার সময় সেই বাড়িতে আগুন দিয়ে আসত, ফলে লোকেরা সহসাই বলাবলি করা শুরু করলো ‘আহা ওদের বাবাই ভালো ছিল লোকটা শুধু ডাকাতিই করত, ছেলেদের মত আগুন দিত না’। ইশপের শিক্ষাঃ আম্লীগের বর্তমান কাজকাম অতিতের বাকশালের স্মৃতি কে মধুর করে দিচ্ছে ।

স্বাধীনতার যুদ্ধের মাঝের সময় থেকে শুরু করে ৭৫ পর্যন্ত সময়ে ভাশানি ন্যাপ সহ সব বিরোধী দল্কে যেই অত্যাচারের স্টিম রোলার সইতে হইছে – এরই ধারাবাহিকতা বি এন পির নিরযাতিত চেহারা । আর জাসদের সাথে যা হইছে তার উদাহরণ আজকের প্রতিবাদি লাখ তরুণরা – যারা নানা ভাবে আওয়ামি জাহেলিয়াতের শিকার । আমার লেখায় যাদের একটু খটকা আছে, তাদের ইনু মিয়ার সরকারি ওয়েবসাইটে ঘুরে আসা দরকার, রনো-র লেখা , ভাশানির হক কথা পড়া উচিত।

স্বাধীন বাংলাদেশের দুর্ভাগ্য, আওয়ামী লিগ একটি দুর্বৃত্ত , সন্ত্রাসি , উগ্র-উদ্ভট মানসিকতার ফ্যাসিবাদি দলে পন্থি দলে পরিবর্তিত হয়েছে।

দুর্বৃত্তআয়নের কারনেই সন্ত্রাসী বাহিনির জন্ম দিতে হয়েছে, আর দুর্বৃত্তআয়ন-এর জন্যই দরকার ছিল চাতুকারিতা, নেতাকে দেবতা বানানোর অপচেস্টা। আর এই অপচেষ্টা চলতে থাকা সময়কালে প্রকৃতি যখন শায় হলও না , নিজেদের দাম্ভিকতার কারনে তৈরি হয় দুর্ভিক্ষ । জনরোষএর ভয়েই হোক, আর সমাজতন্ত্রের পেত্নির লোভে পরেই শুরু বাকশাল-এর। এক উগ্র-উদ্ভট মানসিকতার বিকাশ । দুরবৃত্তায়ন, সন্ত্রাস, দুর্ভিক্ষ ঢাকার জন্য দরকার হয় এক শ্রেণির গোয়েবলশের , উগ্র-উদ্ভট মানসিকতার বিকাশএর জন্য দরকার হয়ে পরে ইকবাল সোবহানদের,বাংলার বানির। পোশা মিডিয়ার , প্রাভদার মতন ।

হীটলারের। স্টালিনে্র, চসেস্কু, মুগাবের মত কুখ্যাত ডিক্টেটরদের দরকার; পোষা মিডিয়ার যারা যে কোন ঊপায়ে প্রভুকে রক্ষা করবে ।

এই ধরনের মীডীয়ার কাজ এক নায়কের, বা নায়িকার পোষা গেস্তাপো বাহিনির স্যতানি আড়াল করবে, আড়াল করবে পারটির ক্যাডারদের শিশ্ন , যারা আরাল করবে সালমান-তাপস- আজিজ খান- মনজুর এলাহিদের সম্পদের কালা পাহাড়। এই ধরনের পোষা পশুদের কাজ হইতেছে এদের প্রভুর ইচ্ছা- অনিচ্ছাকে সুবিধা মত হালাল -হারামের তকমা দেওয়া। এদের মনুষ্যত্ব সততা প্রত্যাশা করে কোন পাগল ! স্বাধীন বাংলাদেশের সবচে বড় দুর্ভাগ্য আওমিলিগ না ।

বরং আওয়ামি ঊরদু লিগাররা যে দালাল মিডিয়ার “এক্সিস অফ ইভিল” “একটা পয়জন আইভি” তৈরি করতে পারছে -সেইটাই সবচে বড় দুর্ভাগ্য ।

 আর এক্সিস অফ ইভিল- জন্ম দিছে আজকের দুনিয়ার সবচে ধূর্ত ডিক্টেটরকে ।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s