অভিনন্দন, বেগম খালেদা জিয়া!

kz1 2

২৩ বছর পর বেগম খালেদা জিয়ার গাড়ি থেকে পতাকা নেমে গেছে। এতে কষ্টের কিছু নাই। আশাহত হওয়ারও কোনো কারণ দেখিনা। মানুষের পোড়া মাংসের গন্ধ, বারুদে দীর্ণ হয়ে যাওয়া খেটে খাওয়া শরীর কিম্বা রাতের আঁধারে-দিনের আলোতে ইজ্জত হারা নারীর কাছে এই ‘গণতন্ত্র’ ও ‘সংবিধান’ রক্ষার ‘নির্বাচনে’র কোনো মূল্য নাই। এ রকম নির্বাচনে অংশ নিয়ে নিজের জন্য সরকারি গাড়ি, বাড়ি আর পতাকা বরাদ্দ না নিয়ে ইতিহাসে অনন্য উচ্চতায় স্থান করে নিয়েছেন বেগম থালেদা জিয়া। অর্জন করেছেন মানুষের ভালোবাসা। 

তারেক মোরতাজা:

গণতন্ত্র’, ‘সংসদ’, ‘সংবিধান’ এবং ‘নির্বাচন’ নিয়ে ৪২ বছর বয়সী যে দেশটির মানুষ দ্বিধা বিভক্ত। যে দেশে জামায়াত শিবিরের গুটি কতক মানুষের ভয়ে আওয়ামী লীগের মত একটা দল এক তরফা ‘নির্বাচন’ নামের একটা জুয়াখেলাকে নিজেদের জন্য ফরজ করে নিয়েছে। সে দেশেও আমাদের আশা আছে!

কারণ এ দেশটা এখন নতুন প্রজন্মের হাতে যাচ্ছে, ধীর লয়ে। যখন পুরোপুরি দ্বৈত নাগরিক ও দ্বৈত আদর্শের লোকরা রাজনীতি থেকে অবসরে যাবেন কিম্বা বয়সের কাছে হার মানতে বাধ্য হবেন- তখন নতুন, ভালো এবং উদার কিছু আশা করা সম্ভব।

২৩ বছর পর বেগম খালেদা জিয়ার গাড়ি থেকে পতাকা নেমে গেছে। এতে কষ্টের কিছু নাই। আশাহত হওয়ারও কোনো কারণ দেখিনা। মানুষের পোড়া মাংসের গন্ধ, বারুদে দীর্ণ হয়ে যাওয়া খেটে খাওয়া শরীর কিম্বা রাতের আঁধারে-দিনের আলোতে ইজ্জত হারা নারীর কাছে এই ‘গণতন্ত্র’ ও ‘সংবিধান’ রক্ষার ‘নির্বাচনে’র কোনো মূল্য নাই। এ রকম নির্বাচনে অংশ নিয়ে নিজের জন্য সরকারি গাড়ি, বাড়ি আর পতাকা বরাদ্দ না নিয়ে ইতিহাসে অনন্য উচ্চতায় স্থান করে নিয়েছেন বেগম থালেদা জিয়া। অর্জন করেছেন মানুষের ভালোবাসা।

বাংলাদেশের সৃষ্টির সাথে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা মেজর জেনারেল জিয়া সরাসরি জড়িত ছিলেন। স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে বেগম জিয়া ছিলেন আপসহীন। মানুষ মনে রেখেছে। রাজনীতি মানে কেবলই ক্রমাগত বল প্রয়োগ কিম্বা মানুষ হত্যা নয়। অনেকে বলবেন বেগম জিয়াকে প্রধানমন্ত্রী অভিযুক্ত করছেন। এ রকম অভিযুক্ত অনেকেই হযেছে। এথেন্সে সক্রেটিসকেও অভিযুক্ত করে হত্যা করা হয়েছিল। কিন্তু সত্য টিকে গেছে।

জামায়াত বিএনপির সাথে আন্দোলনে আছে। আগে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের সাথে ছিল। যে সময় সরকারি অফিসগামি কর্মীকে রাস্তায় ন্যাংটা করা হয়েছে সে সময় আওয়ামী লীগ-জামায়াত সখ্য দেখেছে মানুষ।
এখন যেহেতু জামায়াত বিএনপির সাথে, তাই এটাকে অপরাধ বিবেচনা করা হচ্ছে- কারণ জামায়াত আওয়ামী লীগের সাথে নেই। আওয়ামীলীগের সাথে থাকলে আমরা সবাই চুপ করে থাকাটা কর্তব্যমনে করতাম। যে রকম হাসিনার এরশাদ প্রাপ্তিকে জ্ঞান করি।

আওয়ামী লীগ এত জামায়াত বিরোধি মনোভাব দেখায় তো তারা জামায়াতকে নিষিদ্ধ করছে না কেনো? উত্তর একটাই তাইলে যুদ্ধাপরাধী আর স্বাধীনতা বিরোধি তাবিজের বিক্রি বন্ধ হয়ে যাবে। তবে এইবার নাকি নিষিদ্ধ করবে!

2 thoughts on “অভিনন্দন, বেগম খালেদা জিয়া!

  1. Edesher Media hochchhe AL er syndicate so AL ja kichhu kore shob kichhu jonogoner jonno…BNP’r etogulo neta kono karon chharai dirgho somoy dhore karantorin….Ebaypare kauke to dekhina kono proshno tole…….bcz eta AL korechhe…Jamat er sathe eto mon deya neya…96 er shohingshota …oshohojog shobi AL-Jamat mile mishe korechhe, koi tokhon to keu ekta shobdo uchcharon koreni …….. ajke sei Al-i shorto rakhe Jamat ke chharle tobe alochona……..ki bichitro AL…ki bichitro tader syndicated buddhijibi n Media……! !

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s