রেসিপি: মিট(Meat) কাবাব

সকালে খালি পেটে প্রচুর পরিমান কাবাবের মশলা খান। গলা পর্যন্ত মশলা খাওয়া হলে কাজের উদ্দেশ্যে বের হয়ে একটি লোকাল বাসে উঠুন। এবার পেট্রোল বোমার জন্য অপেক্ষা করতে থাকুন। বাসে পেট্রোল বোমা মেরে আগুন ধরিয়ে দিলে বের হবার চেষ্টা না করে চুপ করে বসে থাকুন। পুড়তে কষ্ট হলে দেশ ও জাতির কথা চিন্তা করে ‘গণতন্ত্র, গণতন্ত্র’ রবে জিকির করতে থাকুন। অবশ্য বাড়ি থেকে বের হবার আগে পরিবারের সদস্যদের বলে যাবেন আপনি পুড়ে কাবাব হয়ে যাবার পরে আপনার দুই রান অর্থাৎ পা প্রধানমন্ত্রীর লাঞ্চে অথবা ডিনারে পরিবেশন করতে আর অবশিষ্ট অংশ যেন সরকারের অন্যান্য শরীক দলের মাঝে সমানভাবে বন্টন করে দেওয়া হয়।

পরিবারের সদস্যদের বলে রাখতে পারেন যে সৌন্দর্য্যের জন্য প্রধানমন্ত্রীর টেবিলে পরিবেশনের আগে আপনার দুই রানে সালাদ দিয়ে লিখে দেয়া যেতে পারে ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, একজন নাগরিক হিসাবে আমার নিরাপত্তা দিবার সাংবিধানিক দায়িত্ব আপনার। আপনি অগাধ নিরাপত্তা দিয়াছেন। আমি কত সহজে সুস্বাদু কাবাবে পরিনত হইয়াছি। আপনি আমার কবাব খাইয়া আপনার সংবিধানকে সমুন্নত রাখিবার সংগ্রামে আমাকে শরীক হইবার সুযোগ দান করুন।”

সর্তকতা: বিহঙ্গ বাসে উঠিবেন না। বিহঙ্গ বাস লইয়া আলোচনার পরে বিহঙ্গ বাসে আর কোন সমস্যা হইবেনা। তবে লঞ্চে চেষ্টা করিয়া দেখিতে পারেন। কারন, নৌ পরিবহন মন্ত্রী কিছুদিন আগে বলিয়াছেন তাহাদের নিকট তথ্য রহিয়াছে লঞ্চে আগুন দেওয়া হইবে। তাহাদের তথ্য ভুল হইবার নহে। আমাদের পোড়া কপাল তাহারা লঞ্চে আগুন দিবার তথ্য আগে আগে পাইলেও কাহারা, কখন কোন লঞ্চে আগুন ধরাইবে এই তথ্য পায়না।